বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগ নিয়ে যা বললেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মিজানুর রহমান

বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেছেন সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান। নিচে তা হুবহু তুলে ধরা হলো-
কখনো আমি ফেসবুকে লিখি না আজকে বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে একটু লিখলাম।
১৯৮৬ সাল থেকে এরশাদ বিরোধী আন্দোলন করি ১৯৮৭ সালে বুড়িচং এরশাদ ডিগ্রি কলেজের যুগ্ম আহ্বায়ক হই ১৯৮৮ সালে কলেজের সহ সভাপতি হই ১৯৯০ সালে অজিত গুহ কলেজের ছাত্রছাত্রী সংসদের ক্রিড়া সম্পাদক পদে নির্বাচন করি। ১৯৯১ সালে বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক হই ১৯৯৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারী বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হই। ১৯৯৫ সালে জেলা ছাত্রলীগের সদস্য নির্বাচিত হই। ১৯৯৭ সালে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হই এইসকল পদাবলি সক্রিয়ভাবে ছাত্র রাজনীতি করার কারনে পেয়েছি। দীর্ঘ ১২ বছর ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলাম।আমরা জানি কাকে দিয়ে কমিটি গঠন করলে কমিটি সক্রিয় ভাবে ছাত্র সংগঠনের কাজ হবে।
এই ১২ বছরের মাঠে আমি ও সাধারণ সম্পাদক মরহুম কামাল হোসেন এবং সাংগঠনিক সম্পাদক বর্তমানে ভারেল্লার দক্ষিনের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক সহ তৎকালে বুড়িচং উপজেলার ৮ টি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি এবং নিমসার জুনাব আলী কলেজের ও বুড়িচং এরশাদ ডিগ্রি কলেজের কমিটির গঠনতান্ত্রিক আমরা তৎকালীন মরহুম এমপি খসরু ভাই, বর্তমান এমপি হাশেম ভাই, বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন স্বপন ,সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার শ্যামল এবং সাবেক সভাপতি উত্তম কুমার শ্যামল এবং সাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম এবং স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা ও পরামর্শ করে কমিটি গঠন করতাম ; দুঃখের বিষয় আমরা এখনো রাজনীতি থেকে সরে যাইনি, আমরা জানি, আমাদের সাথে নুন্যতম কোনো পরামর্শ করা হয়নি। কে বা কারা বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগ নিয়ে এইসব অনাকাঙ্খিত কমিটি গঠন করে এবং একের পর এক ভেঙ্গে যায়। যারা ছাত্রলীগ করতে আগ্রহী তারাও বুড়িচং উপজেলার রং তামাশা দেখে মনে হয় কেউ বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগ করতে আসবে না। তাই আমি অনুরোধ করব যার নীতি নির্ধারক হয়েছেন তারা এই ফোরামটি আর একটু বাড়িয়ে সংগঠনের কাজে লাগান না হয় এইভাবে যদি হয় তাহলে অন্ততপক্ষে বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগের রাজনীতি রসাতলে যাবে। আপনাদের কাছে অনুরোধ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ছাত্র সংগঠন নষ্ট করবেন না।।
জয় বাংলা
জয় বঙ্গবন্ধু

আরো পড়ুন: