সবার একই প্রশ্ন কে পাচ্ছেন মনোনয়ন?

কুমিল্লার সর্বত্র একই প্রশ্ন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কে পাচ্ছেন আওয়ামীলীগের মনোনয়ন? পরপর দুবার আওয়ামী লীগ হেরেছে। ফলে এবার কী হবে?
স্হানীয় এমপি সমর্থিত কেই পাচ্ছেন? নাকী আবারো আফজাল পরিবারে,নাকী শিকদার পরিবার নাকী অন্য মাঠের তরুণ কেউ? নাকী মাঠের বাইরের কেউ?
নিজের মতো করে তাত্ত্বিক বিশ্লেষণ। আড্ডায় আলোচনায় নানাযুক্তি পাল্টা যুক্তি।বাস্তবতার সাথে নেই মিল।
তবে সবচেয়ে সত্য হলো কেউই কিছুই জানেননা। কেন্দ্রীয় নেতারাও জানেনা। সম্ভাব্য প্রার্থীদের সাথে আলোচনা করে জানা যায় এবার কেন্দ্রীয় নেতারা প্রধানমন্ত্রীর কথাই বলছেন।
প্রার্থীতার ঘোষণা না দিলেও আলোচনায় আছেন গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আনজুম সুলতানা সীমা। তিনি বর্তমানে সংরক্ষিত আসনের এমপি।
অনেকটা নিরব তিনি। অপেক্ষা প্রধানমন্ত্রীর সিগন্যালের।
কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় আরফানুল হক রিফাতকে একক প্রার্থী ঘোষণা করে কেন্দ্রে পাঠিয়েছে। আরফানুল হক রিফাত মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।
নির্বাচনের মাঠে রয়েছে মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক, ভিক্টোরিয়া কলেজের সাবেক ভিপি নুর উর রহমান মাহমুদ তানিম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা কবিরুল ইসলাম শিকদার, আফজাল খান পুত্র কুমিল্লা চেম্বারের সভাপতি মাসুদ পারভেজ খান ইমরান, মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক, আওয়ামী লীগের তথ্য উপকমিটির সদস্য এড. আনিসুর রহমান মিঠু।তারা বেশ কয়েকবছর যাবৎ নির্বাচনে মাঠে রয়েছে।
কুমিল্লা বাসী অপেক্ষায় আছে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি।

আরো পড়ুন: